শনিবার, ০৪ জুলাই ২০২০, ০৮:৫৩ পূর্বাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ :

ফ্রিজে ২৮ দিন পর্যন্ত সতেজ থাকতে পারে করোনা ভাইরাস ।। কিশোরগঞ্জ সংবাদ

কিশোরগঞ্জ সংবাদ ডেস্ক / ১৭০ বার
আপডেট সময় : বৃহস্পতিবার, ৩০ এপ্রিল, ২০২০

আপনার ফ্রিজের অন্দরে করোনাভাইরাস জ্যান্ত অবস্থায় কতক্ষণ লুকিয়ে থাকতে পারে জানেন ? জানার প্রয়োজন কিন্তু রয়েছে। রয়েছে উদ্বেগের কারণও। আসুন জেনে নেওয়া যাক এই COVID-19 সংক্রমণ কালে কতটা বিপজ্জনক হতে পারে ফ্রিজ ! আর তা থেকে প্রতিকারের উপায়ই বা কী ?

চলতি বছরের ২১ ফেব্রুয়ারি WHO (World Health Organization)-এর তরফে একটি রিপোর্ট প্রকাশ করা হয়। সেখানে পরিষ্কার ভাবে উল্লেখ করা হয়েছে, -২০ ডিগ্রি সেন্টিগ্রেডে অন্যান্য করোনাভাইরাসগুলি কমপক্ষে দুই বছরের জন্য বেঁচে থাকতে পারে।

অন্য আরও বেশ কিছু সমীক্ষা থেকে জানা যাচ্ছে, SARS-CoV এবং MERS-CoV এর মতো ভাইরাসগুলি তাপমাত্রা, আর্দ্রতা এবং আলো ইত্যাদির ভিত্তিতে নানা তলে বেশ কিছু দিনের জন্য বসবাস করতে পারে। রিপোর্টগুলিতে আরও উল্লেখ করা হয়েছে যে, ফ্রিজের তাপমাত্রা অর্থাৎ ৪ ডিগ্রি সেন্টিগ্রেডে MERS-CoV কমপক্ষে ৭২ ঘণ্টা অর্থাৎ তিন দিনের জন্য সক্রিয় অবস্থায় থাকতে পারে।

কিছু দিন আগেই সংবাদমাধ্যম NBC Bay Area-র তরফে একটি রিপোর্টে উল্লেখ করা হয় যে, অপেক্ষাকৃত কম তাপমাত্রায় অর্থাৎ ফ্রিজের অন্দরের যে তাপমাত্রা সেখানে কমপক্ষে ২৮ দিনের জন্য টিকে থাকতে পারে SARS-CoV ভাইরাস। আর এই রিপোর্ট তৈরি করা হয়েছে, ২০১০ সালের আমেরিকান সোসাইটি ফর মাইক্রোবাইলজি-র (American Society For Microbiology) একটি গবেষণার ভিত্তিতে। তাপমাত্রা এবং আর্দ্রতার হেরফেরে SARS করোনাভাইরাস যা COVID-19 ভাইরাসের (SARS-CoV-2) সঙ্গে অঙ্গাঙ্গি ভাবে জড়িত, তার উপর রিসার্চ চালিয়ে দেখা হয়েছে আমেরিকান সোসাইটি ফর মাইক্রোবায়োলজির তরফে। সেখানে বিজ্ঞানীরা দাবি করেছেন যে, কম আর্দ্রতর এবং ৪০ ডিগ্রি ফারেনহাইটের (৪.৪ ডিগ্রি সেন্টিগ্রেড) কম তাপমাত্রায় করোনাভাইরাস আরও সতেজ হয়ে ওঠে। ঠিক যে তাপমাত্রা থাকে আমাদের ফ্রিজের ভিতরে।

এক্ষেত্রে করণীয় :

  • প্রথমেই মাথায় রাখতে হবে, বাজার বা মাসকাবারি জিনিসপত্র ভালো করে জীবাণুমুক্ত করেই ফ্রিজে ঢোকাতে হবে। এ ছাড়াও আপনার ফ্রিজে যাতে কোনও মতে করোনাভাইরাস ঢুকে আসন গেড়ে না বসে, তার বেশ কিছু উপায় বাতলে দিলেন ডক্টর গ্রিনে।
  • একটি বালতিতে অ্যালকোহল যুক্ত কোনও স্যানিটাইজারের সাহায্যে জীবাণুমুক্ত করার তরল তৈরি করতে হবে। গ্রিনের কথায়, ‘করোনাভাইরাস সম্পূর্ণরূপে দ্রবীভূত করতে প্রয়োজন অ্যালকোহল বা সাবান এবং জল।’
  • ডক্টর গ্রিনে বাড়িতেই জল এবং ব্লিচের সংমিশ্রণে জীবাণুনাশক তৈরি করে নিতে বলছেন ডক্টর গ্রিনে। তাঁর আরও বক্তব্য, ৪ লিটার জলের সঙ্গে ১/৩ কাপ ব্লিচ মিশিয়ে মিশ্রণটি তৈরি করে নিন। এই উপায় না পেলে গরম জলে কিছুটা সাবান ফেলে দেওয়ার কথাও বলছেন গ্রিনে।
  • এবার এই মিশ্রণে একটি শুকনো তোয়ালে ভালো করে ভিজিয়ে নিতে হবে।
  • এবার ফ্রিজে যে খাবারের বাক্স বা প্যাকেটগুলি রাখবেন খুব ভালো করে সেগুলিকে ওই তোয়ালে দিয়ে বেশ ভালো করে কয়েকবার পরিষ্কার করতে হবে।
  • তাঁর আরও বক্তব্য, ‘যে ভাবে টেবল বা অন্য কোনও তল জীবাণুমুক্ত করা হয়, সেই ভাবেই জীবাণুমুক্ত করতে হবে এই খাবারের প্যাকেটগুলির তল।’
  • এখানেই শেষ নয়। প্রতিনিয়ত নিয়ম করে ফ্রিজের কন্টেনারগুলিকে জীবাণুমুক্ত করে যেতে হবে এই পদ্ধতিতেই।
  • প্রতিবার জীবাণুমুক্ত করার পর ভালো করে ধুয়ে ফেলতে হবে হাত। ধুয়ে ফেলতে হবে বাজারের থলিও।

এখনও অবধি পরিষ্কার নয় যে, ডিপ ফ্রিজ বা যেখানে ০ ডিগ্রির কাছাকাছি তাপমাত্রা সেখানে কতক্ষণ বেঁচে থাকতে পারে করোনাভাইরাস। তবে রিস্ক না নিয়ে জমে যাওয়া বা হিমায়িত কোনও বস্তুকে জীবাণুমুক্ত করে নেওয়াই ভালো। ফ্রিজারের ক্ষেত্রে বিষয়টি আরও ভয়ংকর এবং অসুবিধারও। কারণ হিমশীতল অবস্থাতেও অনেকক্ষণই বেঁচে থাকতে পারে করোনাভাইরাস। সুতরাং এখনও কিছু প্রমাণ হওয়ার আগে সতর্কতা অবলম্বন করা অবশ্যই জরুরি।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর
Theme Created By ThemesDealer.Com